দক্ষ ট্রেডারদের ফান্ডিং এর অভাব হয় না

বাংলাদেশের আমার পরিচিত কয়েকজনকে আমি এই ওয়েবসাইটে তাদের পোর্টফলিও আপলোড করে নিজেদের স্কোর দেখতে বলেছিলাম। কনটিনিউ একটা একাউন্টে অনেকদিন থেকে ট্রেড করে যাচ্ছেন এমন ট্রেডার খুব কম। হাতে গোনা আমার গন্ডির মধ্যে কয়েকজনকে দিয়েছিলাম। আজ তাদের ওয়েবসাইটে জুন-২০২০ মাসের সেরাদের ফলাফল প্রকাশ করেছে।

যে ট্রেডার প্রথম হয়েছে উনি ফান্ড পাচ্ছে 360,000.00 ইউরো, দ্বিতীয়জন পাচ্ছে 252,000.00 ইউরো, আর ৩য় জন 102,474.45 ইউরো। সামনের দিনগুলোতে যারা এখানে ভালো করেছে প্রপার রিস্ক ম্যানেজমেন্ট মেনে তারা আরো ফান্ড পাবে। সর্বোচ্চ 6,000,000.00 ইউরো পর্যন্ত ফান্ডিং পাবে। ফান্ডিংয়ের অংকগুলো কিন্তু অনেক বিশাল। এই ট্রেডারগন যে প্রতিমাসে হাজার হাজার % গেইন করেছেন এমনটা কিন্তু না। প্রপার রিস্ক ম্যানেজমেন্ট ফলো করে গেইন কম হলেও সুন্দর ট্রেডিং এর জন্য তারা আজ এত বড় ফান্ডিং পাচ্ছে। এত বড় ফান্ড আমাদের জন্য হয়তো স্বপ্ন। কিন্তু এই স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথে চলতে আমাদের যত অনিহা। মাসে ২০%-৩০% গেইন না হলে আমাদের হয়তো ভালই লাগে না। অনেকের টার্গেট আরো বড়। কিন্তু যিনি প্রথম হয়েছেন তার দুই বছরের গেইন কত % জানেন??? মাত্র ৪৫%….

বছরে ২০% রিটার্নের হিস্টোরী দিয়েই প্রথম হয়ে গেছেন। ড্র ডাউন সর্বোচ্চ ছিল 13.77% নিচের ছবিতে তার Month per month এর হিস্টোরীও দিয়ে দিলাম। একটু লক্ষ্য করলেই বুঝতে পারবেন। আহামরি যে প্রফিট প্রতিমাসে এসেছে এমনটা নয়। এভারেজে লাভ লস মিলিয়েই তার এই পোর্টফলিও গড়েছেন।

২০১৮ সালের মে থেকে ডিসেম্বর ৮.৩৮%
২০১৯ সালের জানুয়ারী থেকে ডিসেম্বর ৯.৪০%
২০২০ সালের জানুয়ারী থেকে এখন পর্যন্ত ২২.৬৫%

এখন প্রশ্ন হলো আপনি নিজেকে কিভাবে দেখতে চান। ফরেক্সকে পার্টটাইম টাইমপাস করতে চান নাকি ভবিষ্যতে একটি সুবর্ণ ক্যারিয়ার হিসেবে নিতে চান। দুটোর জন্য প্রস্তুতি হবে দুই রকম। বাংলাদেশ থেকে আমাদের কয়েকজনের পোর্টফলিও আমরা ওখানে দিয়েছিলাম স্কোর ৫০+ এসেছে কয়েকজনের। এখন হয়তো আর একটু চেষ্টা করলে ভালো করতে পারবে সামনের দিনগুলোতে। নিজের সিস্টেম ডেভেলপ করে সে অনুযায়ী ট্রেড করে যেতে থাকলে সেদিন বেশি দূরে না যখন আপনি সফল হতে পারবেন। ফরেক্স জগতের পরিধি অনেক বড়। এখান থেকে একটু ওখান থেকে একটু করে যদি প্রফিট করার চিন্তা করেন তাহলে বেশিদিন টিকে থাকতে পারবেন না। আপনার নির্দিষ্ট ট্রেডিং সিস্টেমে ফোকাস দিন, কমপক্ষে ২-১ মাস ডেমো প্র্যাকটিস করুন, তারপর যদি সিস্টেমটি স্ট্যাবল মনে হয় আর ঝামেলামুক্ত মনে হয় তখন একটা মিনিমাম ডিপোজিট করে সেটাতে ট্রেড করা শুরু করুন। নিজের পোর্টফলিও বিল্ডআপ করুন। ভালো পোর্টফলিও থাকলে হাজারো কোম্পানি রয়েছে, হাজারো ওয়েবসাইট রয়েছে যারা আপনাকে ফান্ডিং করার জন্য প্রস্তুত থাকবে। শুভকামনা রইল।

0 Shares
Share via
Copy link
Powered by Social Snap